Homeরাজ্য১৫০ টাকায় পেলেও রাজ্যকে দিতে হবে ৪০০ টাকা

১৫০ টাকায় পেলেও রাজ্যকে দিতে হবে ৪০০ টাকা

লাগামছাড়া করোনায় আক্রান্ত্রের সংখ্যা যেমন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে, তেমনি মৃত্যুর সংখ্যাও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। আর সেই করোনাকে বাগে আনতে ১ লা মে থেকে শুরু হচ্ছে আরেক ধাপে টিকাকরন। অর্থাৎ ১৮ বছর বয়স হলেই নেওয়া যাবে করোনার টিকা, সোমবার এ সিধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। পাশাপাশি এও সিধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, ১ লা মে থেকে বাজারেই মিলবে করোনার ভ্যাকসিন। ৫০% ভ্যাকসিন খোলাবাজারে বিক্রি করতে পারবে সংস্থা , সরকার নির্ধারিত দামে বিক্রি করতে পারবে প্রস্তুতকারী সংস্থা । মানুষ চাইলে নিজেই ভ্যাকসিন কিনে নিতে পারবে। অর্থাত্ রাজ্যগুলিকে সরাসরি ভ্যাকসিন বিক্রি করতে পারবে প্রস্তুতকারী সংস্থা।

আর পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনে পুণের সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, রাজ্য সরকারগুলির জন্য ভ্যাকসিনের প্রতি ডোজের দাম পড়বে ৪০০ টাকা। অর্থাৎ, সরকারি হাসপাতালে ভ্যাকসিনের এক-একটি ডোজ মিলবে ৪০০ টাকায়। অন্যদিকে, বেসরকারি হাসপাতালগুলির ক্ষেত্রে এই মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৬০০ টাকা। এদিকে কেন্দ্র একটি ডোজ পাবে ১৫০ টাকায়। অর্থাৎ কেন্দ্রীয় সরকারের হাসপাতালেই সবথেকে সস্তায় মিলবে এই টিকা। উল্লেখ্য, কেন্দ্র আগেই জানিয়েছে, মোট উৎপাদিত টিকার ৫০ শতাংশ কেন্দ্রকে দিতে হবে। আর বাকি ৫০ শতাংশ রাজ্য এবং বেসরকারি হাসপাতালকে দিতে হবে। তবে সিরাম ইনস্টিটিউটের দাবি, দাম বাড়লেও এই টিকা বিদেশের টিকার থেকে দামে অনেকটাই সস্তা। বিদেশে ডোজ প্রতি টিকার দাম ৭৫০ থেকে ১৫০০ টাকা

ট্রেন্ডিং নিউজ