Home রাজনীতি বছরের প্রথম দিনই বাড়িতে পদ্ম শুভেন্দু, অসস্থিতে তৃণমুল

বছরের প্রথম দিনই বাড়িতে পদ্ম শুভেন্দু, অসস্থিতে তৃণমুল

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শুভেন্দুর ছোট ভাই সৌমেন্দু অধিকারীকে কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে রাজ্য সরকার। সূত্রের খবর, ১ জানুয়ারি বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন সৌমেন্দু অধিকারী। যদিও এ বিষয়ে বিজেপি এবং সৌমেন্দুর তরফে কিছু জানা যায়নি।

এদিকে, বুধবারই তাঁর অপসারণকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন সৌমেন্দু। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, অমিত শাহের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরে একের পর এক ভাঙন ধরেছে ঘাসফুল শিবিরে। তাই তাঁর বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখতে চাইছে না রাজ্যের শাসক শিবির বহাল। এ জন্যেই কাঁথি পৌরসভার প্রশাসক পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে সৌমেন্দুকে। এই পরিস্থিতিতেই এবার সৌমন্দু বিজেপিতে যোগদান করবেন বলেই মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৫০ বছর ধরে কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদে ছিলেন অধিকারী পরিবারের লোক। এবার এই প্রথম রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তে ৫০ বছর পর কাঁথি পুরসভার শীর্ষপদে বসলেন অধিকারী পরিবারের বাইরের কেউ। ওই পদে বসানো হয়েছে শুভেন্দু বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা সিদ্ধার্থ মাইতিকে।

১৯৬৯ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত কাঁথি পৌরসভার প্রশাসক ছিলেন শিশির অধিকারী। তারপর ১৯৯৯ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত দায়িত্বে ছিলেন শিশির অধিকারী। তারপর ২০০৯ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত দায়িত্বে ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তারপর ২০১০ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত অর্থাৎ টানা ১০ বছর দায়িত্বে ছিলেন সৌমেন্দু অধিকারী।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার খড়দায় এক জনসভায় শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, সবে তো পদ্মের কুঁড়িটা ফুটেছে। রামনবমী আসুক তাঁর পরিবারেও লোকও পদ্ম ফোঁটাবে। রাজনৈতিক মহলের মতে, সৌমেন্দুকে নিয়ে ওইদিন হয়তো কিছু একটা ইঙ্গিত করেছিলেন তিনি।

ট্রেন্ডিং নিউজ