Home রাজনীতি বিজেপির মেগা রোড শো-এর আগে ধাক্কা! বৈশাখীর নতুন সিদ্ধান্তে বঙ্গ রাজনীতি সরগরম

বিজেপির মেগা রোড শো-এর আগে ধাক্কা! বৈশাখীর নতুন সিদ্ধান্তে বঙ্গ রাজনীতি সরগরম

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর শোভন চট্টোপাধ্যায়ের প্রথম বড় কর্মসূচি কলকাতায়। পুলিশ অনুমতি না দিলেও সাধারণ মানুষের সাড়ার প্রতীক্ষায় বিজেপির রাজ্য দফতর। যদিও ইতিমধ্যে্ই জল্পনা বাড়িয়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। রোড শো-এ অংশগ্রহণ নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ।

রবিবার কলকাতা পুলিশের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বিজেপির রোড শো-এ অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। তবে বিজেপির তরফে অনুমতির চেষ্টার কোনও ত্রুটি ছিল না বলেই জানা গিয়েছে। প্রথমে যে রাস্তা দিয়ে কর্মসূচির পরিকল্পনা করা হয়েছিল, পুলিশ আপত্তিতে তা বদলানো হয়। কিন্তু তারপরেই যানজটের সম্ভাবনা কথা বলে পুলিশের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে রোড-শো-এর কোনও অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। বিজেপির পরিকল্পনা অনুযায়ী, মোমিনপুর থেকে মাঝেরহাট, টালিগঞ্জ হয়ে রোড শো শুরু হয়ে মুরলি ধর লেন পর্যন্ত রোড শো হওয়ার কথা। এদিকে মেগা রোড শো-এর আগে রবিবার রাতে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের গোলপার্কের ফ্ল্যাটে বৈঠকে বসেন বিজেপির কলকাতা জোনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা।

তবে বিজেপি তাদের কর্মসূচিতে অবিচল রয়েছে। গেরুয়া শিবিরের স্পষ্টবার্তা রোড শো হবেই। নির্দিষ্ট সময় দুপুর সাড়ে তিনটেতেই শুরু করা হবে রোজ শো। যদি নবান্ন অভিযানের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়, তার জন্য পুলিশ দায়ী থাকবে বলে জানানো হয়েছে। বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু কলকাতা পুলিশের এই সিদ্ধান্তকে লজ্জাজনক এবং অগণতান্ত্রিক বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেছেন, বিজেপি কর্মসূচি নিলে পুলিশ অনুমতি দিতে চায় না। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মসূচিতে পুলিশ অনুমতি দেয়। প্রয়োজনে পুলিশের অনুমতি ছাড়াই বিজেপি পথে নামবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

এদিকে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি সোমবারের রোড শোতে থাকতে পারছেন না। ব্যক্তিগত কারণের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। সিদ্ধান্তের কথা দলকেও তিনি জানিয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন। সাতাশে ডিসেম্বর শোভন চট্টোপাধ্যায়কে কলকাতার জোনের অবজারভার করা হয়। সঙ্গে কনভেনর করা হয় দেবজিৎ সরকারকে। কোন কনভেনর করা হয় বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শঙ্কুদেব পণ্ডাকে।

ট্রেন্ডিং নিউজ