Home রাজনীতি রাজীবের মতো ভালো এবং সৎ নেতাকে বিজেপি স্বাগত জানাতে তৈরি

রাজীবের মতো ভালো এবং সৎ নেতাকে বিজেপি স্বাগত জানাতে তৈরি

নুন্যতম সৌজন্য দেখাননি দলনেত্রী। মন্ত্রিত্ব ছেড়ে; কার্যত কাঁদতে কাঁদতে নেত্রীর অপমান; ও সতীর্থদের ব্যক্তি আক্রমণের কথা সংবাদ মাধ্যমের সামনে তুলে ধরলেন প্রাক্তন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। মন্ত্রিত্ব ছাড়লেও; এখনও দল ছাড়ার ঘোষণা করেননি তিনি। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ নিশ্চিত; বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এর মধ্যেই; রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়ে রাখলেন রাজ্যে বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় পদত্যাগ করার পরেই তিনি জানান; “রাজীবের মতো ভালো এবং সৎ নেতাকে স্বাগত জানাতে তৈরি আছে বিজেপি”।

শুক্রবার সকালে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ইস্তফা জমা দেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে এদিন রাজভবনে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের কাছে গিয়েও ইস্তফাপত্র পেশ করেন তিনি। জানা গিয়েছে শুক্রবারই তৃণমূল কংগ্রেসের সাংগঠনিক সব পদ ও দল থেকেও পদত্যাগ করবেন তিনি। শুভেন্দু অধিকারী; লক্ষ্মীরতন শুক্লার পর; গত একমাসে তিনজন মন্ত্রী মমতা মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিলেন।

রাজ্যে বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়ে বলেন; “রাজীবের আত্মমর্যাদা আছে। যাঁরা বাংলার উন্নয়ন চান; যাঁরা সোনার বাংলা গড়তে চান; তৃণমূল কংগ্রেসে তাঁদের দমবন্ধ হয়ে আসছে। রাজীবের মতো নেতা যদি বিজেপিতে যোগ দিতে চান; তাহলে তাঁকে স্বাগত জানানো হবে”।

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র মতই একই কথা বললেন; অর্জুন সিং। অর্জুন জানান; “রাজীবকে স্বাগত জানাবে ভারতীয় জনতা পার্টি। রাজীব বিজেপিতে যোগ দিলে ভালো হবে। রাজীবেরও বিজেপিকে দরকার আছে। বিজেপিরও রাজীবের প্রয়োজন আছে”। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে গেরুয়া শিবিরের আহ্বান জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। দিলীপ ঘোষ বলেন; “আমরা তো আমাদের শক্তির উপর লড়ছি। আমাদের কর্মীর উপর ভরসা করছি। মানুষ তো পরিবর্তন চান। মানুষ আমাদের দলে যোগ দিতে চান। যাঁরা পরিবর্তন চান; তাঁরা আমাদের দলে যোগ দিতে পারেন। তাঁদেরকে দলে স্বাগত”।

ট্রেন্ডিং নিউজ