HomeUncategorizedকলকাতার বহুতলে বিধ্বংসী আগুন, মৃত বৃদ্ধা, ছাদ থেকে ঝাঁপ কিশোরের

কলকাতার বহুতলে বিধ্বংসী আগুন, মৃত বৃদ্ধা, ছাদ থেকে ঝাঁপ কিশোরের

মধ্য কলকাতার গণেশ চন্দ্র অ্যাভিনিউয়ের একটি বহুতলে ভয়াবহ আগুন লাগে। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ১০টি ইঞ্জিন। আগুন লাগার পরেই সেখানে পৌঁছন কলকাতা পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের আধিকারিকরা। সবাই মিলে দ্রুত ওই বহুতলের ভিতরে আটকে পড়া বাসিন্দাদের বের করে আনার চেষ্টা করতে থাকেন। এই আগুনে পড়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ভয়ে ছাদ থেকে ঝাঁপ মেরে এক কিশোর গুরুতর আহত হয়। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় তার। মারা গিয়েছেন এক বৃদ্ধা। শনিবার সকালেও অবশ্য বহুতলের কিছু জায়গা থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে। সেগুলিই খতিয়ে দেখছেন দমকল আধিকারিকরা।

শুক্রবার রাত ১১টা নাগাদ গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউর একটি আটতলা বাড়িতে লাগে এই বিধ্বংসী আগুন। বেশ কয়েকটি তলায় সেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আতঙ্কে বাসিন্দারা চিৎকার করতে থাকেন। সঙ্গে সঙ্গেই খবর দেওয়া হয় দমকলে। প্রাথমিকভাবে বহুতলের বাসিন্দা ও স্থানীয় বাসিন্দারা আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। কিন্তু দ্রুত আগুন বিভিন্ন তলায় ছড়িয়ে পড়ায় প্রাণভয়ে বহুতল থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করতে থাকেন তাঁরা।

কিছুক্ষণের মধ্যেই দমকল এসে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। চারদিকে কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। বহুতলের উপরের দিকের তলাগুলিতে আটকে পড়েন অনেকে। বহুতলের বাসিন্দাদের বের করে আনার কাজ শুরু করেন পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের আধিকারিকরা। বহুতলের উপরের দিকে অনেক আটকে পড়ায় নিয়ে আসা হয় হাইড্রলিক ল্যাডার। তাই দিয়েই বাসিন্দাদের বের করে আনার কাজ শুরু হয়। খুব কম সময়ের মধ্যেই অনেককে বের করে আনতে সক্ষম হন তাঁরা এমনটাই জানা গিয়েছে। ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। তিনিই দাঁড়িয়ে থেকে পুরো বিষয়টির দেখভাল করতে থাকেন।

তবে এর মধ্যেই ধোঁয়ায় দম বন্ধ হয়ে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের মধ্যে একজন বৃদ্ধাও রয়েছেন বলে খবর। এদিকে ভয় পেয়ে ছাদ থেকে ঝাঁপ মেরে গুরুতর আহত হয় এক কিশোর। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে।সেখানেই মৃত্যু হয় তার। মৃতদের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁদের নাম এখনও জানায়নি পুলিশ।

ট্রেন্ডিং নিউজ